স্বাধীনতা দিবস উদযাপন উপলক্ষে প্রতিবেদন রচনা [PDF]

play icon Listen to this article

তােমার বিদ্যালয়ে স্বাধীনতা দিবস উদযাপন উপলক্ষে প্রতিবেদন রচনা কর।

অথবা, মনে কর, তুমি রাহাত। তুমি খুলনা জিলা স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্র। তােমার বিদ্যালয়ে স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে আয়ােজিত অনুষ্ঠানের বিবরণ দিয়ে প্রধান শিক্ষক বরাবর একটি প্রতিবেদন প্রণয়ন কর।


২৭ মার্চ, ২০২২ ইং
প্রধান শিক্ষক
খুলনা জিলা স্কুল

বিষয় : বিদ্যালয়ে স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে উদযাপিত অনুষ্ঠানমালার প্রতিবেদন।

জনাব,
গত ২৬ মার্চ বিদ্যালয়ে উদযাপিত স্বাধীনতা দিবস সম্পর্কে যে প্রতিবেদন চাওয়া হয়েছে তা নিম্নে পেশ করা হলাে :

২৬ মার্চ আমাদের জাতীয় জীবনে এক গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়। এ দিন বাঙালি জীবনে আনন্দের জোয়ার বয়ে যায়। কারণ ২৬ মার্চ আমাদের ‘স্বাধীনতা দিবস’। গত ২৬ মার্চ, ২০২২ আমাদের বিদ্যালয়ে ‘স্বাধীনতা দিবস’ উপলক্ষে এক জমকালো অনুষ্ঠানের আয়ােজন করা হয়। এ উপলক্ষে কবিতা রচনা ও পাঠ, প্রবন্থ লিখন, কবিতা আবৃত্তি, দেশত্ববোধক গান, রবীন্দ্র সংগীত, নজরুল গীতি, উপস্থিত বক্তৃতা, নির্ধারিত বক্তৃতা ও বিতর্ক প্রতিযােগিতার আয়ােজন করা হয়। প্রতিটি বিষয়ের উপর প্রথম ও দ্বিতীয় স্থান প্রাপ্তদের জন্য সম্মানজনক পুরস্কারের ব্যবস্থা করা হয়। এছাড়া মহান স্বাধীনতাযুদ্ধে অংশগ্রহণকারী বীর মুক্তিযােদ্ধাদের সংবর্ধনা দেয়া হয় এবং পুরস্কৃত করা হয়। পুরস্কারের মােট মূল্যমান ছিল ১০,০০০ (দশ হাজার) টাকার বই।

বইগুলাে ছিল আমাদের মুক্তিযুদ্ধ ও জাতীয় চেতনার জাগরণ হয় এ ধরনের। কবিতা রচনায় ও প্রবন্ধ রচনায় যথাক্রমে প্রথম ও দ্বিতীয় হয় দশম শ্রেণির ছাত্রী আঁখি। কবিতা রচনায় দ্বিতীয় হয় নবম শ্রেণির ছাত্র তেফিক এবং প্রবন্ধ রচনায় প্রথম হয় অষ্টম শ্রেণির ছাত্র পলাশ। প্রত্যেক শ্রেণির ছাত্রছাত্রীরাই কোনাে না কোনাে বিষয়ে পুরস্কার পেয়েছে। মুক্তিযােদ্ধাদের পুরস্কার স্বরুপ থানা মুক্তিযােদ্ধা অধিনায়কের হাতে এক সেট মুক্তিযুদ্ধের দলিল তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক সাহেব। অনুষ্ঠান সুশৃঙ্খলভাবে আনন্দঘন পরিবেশে সম্পন্ন হয়।


প্রতিবেদক

প্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধু, আশা করি ভালো আছো। তুমি অবশ্যই উপরের প্রতিবেদনটি পড়েছো। এই প্রতিবেদনের একই বিষয় অবলম্বনে আমরা একটি পত্র লেখার চেষ্টা করবো। চলো শুরু করা যাক…

একাডেমিক প্রশ্ন

তোমার বিদ্যালয়ে জাতীয় দিবস উদযাপনের বর্ণনা দিয়ে বন্ধুকে পত্র লিখ

তোমার বিদ্যালয়ে স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের বর্ণনা দিয়ে বন্ধুকে পত্র লিখ

২৬শে মার্চ, ২০২২ ইং

যশোর।

প্রিয় রবিন,

মহান স্বাধীনতা দিবসের প্রিতী ও শুভেচ্ছা নিও। আশা করি ভালোই আছো। আজ আমাদের বিদ্যালয়ে মহান স্বাধীনতা দিবস উৎযাপিত হয়েছে। সেই অনুষ্ঠানের বর্ননা দিতেই আজ লিখতে বসেছি।

আজ আমাদের বিদ্যালয়ে মহান ‘স্বাধীনতা দিবস’ উপলক্ষে এক জমকালো অনুষ্ঠানের আয়ােজন করা হয়। এ উপলক্ষে কবিতা রচনা ও পাঠ, প্রবন্থ লিখন, কবিতা আবৃত্তি, দেশত্ববোধক গান, রবীন্দ্র সংগীত, নজরুল গীতি, উপস্থিত বক্তৃতা, নির্ধারিত বক্তৃতা ও বিতর্ক প্রতিযােগিতার আয়ােজন করা হয়। প্রতিটি বিষয়ের উপর প্রথম ও দ্বিতীয় স্থান প্রাপ্তদের জন্য সম্মানজনক পুরস্কারের ব্যবস্থা করা হয়। এছাড়া মহান স্বাধীনতাযুদ্ধে অংশগ্রহণকারী বীর মুক্তিযােদ্ধাদের সংবর্ধনা দেয়া হয় এবং পুরস্কৃত করা হয়। পুরস্কারের মােট মূল্যমান ছিল ১০,০০০ (দশ হাজার) টাকার বই।

বইগুলাে ছিল আমাদের মুক্তিযুদ্ধ ও জাতীয় চেতনার জাগরণ হয় এ ধরনের। কবিতা রচনায় ও প্রবন্ধ রচনায় যথাক্রমে প্রথম ও দ্বিতীয় হয় দশম শ্রেণির ছাত্রী আঁখি। কবিতা রচনায় দ্বিতীয় হয় নবম শ্রেণির ছাত্র তেফিক এবং প্রবন্ধ রচনায় প্রথম হয় অষ্টম শ্রেণির ছাত্র পলাশ। প্রত্যেক শ্রেণির ছাত্রছাত্রীরাই কোনাে না কোনাে বিষয়ে পুরস্কার পেয়েছে। আমি দেশত্ববোধক গানে প্রথম স্থান অধিকারের গৌরব অর্জন করেছি। আজ আর বিশেষ কিছু লিখবো না। স্বাধীনতা দিবস তোমার কেমন কাটলো- জানাতে ভুলবে না।

তোমারই প্রীতি ধন্য

আশিকুর রহমান

[পত্রের শেষে অবশ্যই প্রেরক ও প্রাপক এর নাম ঠিকানা যুক্ত খাম আকতে হবে]


প্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধু, আমাদের আজকের আয়োজন তোমার কেমন লাগলো? কমেন্ট করে জানাবে। আর সাইটের মান উন্নয়ন বিষয়ক পরামর্শ বা অভিযোগ থাকলে admin@proshna.com এই ঠিকানায় লিখতে পারো।

একাডেমিক প্রশ্ন
What’s your Reaction?
+1
27
+1
13
+1
27
+1
7
+1
4
+1
4

আপনার মতামত জানানঃ