তােমার সদ্য পড়া একটি বই সম্পর্কে মতামত জানিয়ে বন্ধুর নিকট পত্র লেখ

play icon Listen to this article

তােমার সদ্য পড়া একটি বই সম্পর্কে মতামত জানিয়ে বন্ধুর নিকট পত্র লেখ

অথবা, মনে কর, তুমি রংপুরের মানিক, তােমার বন্ধু সুমন সিলেটের নিশ্চিত্পুর গ্রামে থাকে। বই পড়ার আনন্দ জানিয়ে তােমার বন্ধুকে একখানা পত্র লেখ।

অথবা, মনে কর, তুমি লামিয়া। সম্প্রতি পড়া একটা বই সম্পর্কে মতামত জানিয়ে তােমার বন্ধু মাইশাকে একটি পত্র লেখখ।

অথবা, মনে কর, তােমার নাম অনু। তুমি মাধবপাশা গ্রামে বাস কর। সম্প্রতি পড়া একটি বই সম্পর্কে মতামত জানিয়ে তােমার বন্ধু অপু-এর নিকট একখানা পত্র লেখ।

অথবা, মনে কর, তুমি কুমিল্লার হৃদয়। সম্প্রতি পড়া একটি বই সম্পর্কে মতামত জানিয়ে তােমার বরিশালের বন্ধু নিলয়ের কাছে পত্র লেখ।

অথবা, মনে কর, তুমি সজিব। তুমি নড়াইলে থাক। তােমার বন্ধু সজল সিলেটে থাকে। সম্প্রতি তােমার পড়া একটা বই সম্পর্কে মতামত জানিয়ে সজলের কাছে একটি পত্র লেখ।


SSC: ব. বো. ২০১৫, ব. বো. ২০১৭, ব. বো. ২০১৬, চ. বো. ১৭, ঢা. বো. ১৯


১০.০৩.২০২২
পুলশান, ঢাকা

প্রিয় শান্ত,
একরাশ শুভেচ্ছা। আশা করি ভালােই আছিস। আমার অবকাশের দিনগুলাে কীভাবে অতিবাহিত হচ্ছে জানতে চেয়েছিস। পরীক্ষা শেষ তাই হাওয়ায় ভেসে বেড়াচ্ছি, গল্প ও উপন্যাস পড়ে ছুটি কাটাচ্ছি।

জানিস, বঙ্কিমচন্দ্রের দুর্গেশনন্দিনী উপন্যাসটি অত্যন্ত ভালাে লাগল। প্রেম ও ত্যাগের মহিমায়, রহস্যের তীব্র আকর্ষনে, নব নব সৌন্দর্য বিস্তারে, বীরত্বের বর্ণচ্ছটায় আমাকে মুগধ করল। চরিত্রগুলাে যেমন বাস্তব তেমনি সজীব। এর প্রতিটি পৃষ্ঠায় অপূর্ব সৌন্দর্যের ছড়াছড়ি। নায়িকা তিলােত্তমা সেই সৌন্দর্যেরই রূপমূর্তি, বাংলার উপন্যাস উদ্যানে প্রথম বিকশিত কুসুম, বাদল দিনের প্রথম ‘কদম ফুল’। তার কমনীয়তা, সহজ সরল প্রেম নিবেদনের ভঙ্গিমা অপূর্ব, অবিস্মরণীয়।

বিমলা চরিত্রের মধ্যে বাঙালির নবজাগ্রত প্রাণচেতনার স্মরণ অবশ্যই লক্ষণীয়। তার নানা উখান-পতনময় রসঘন জীবন কাহিনী সত্যিই চমৎকার। আর আয়শা সৌন্দর্য, প্রেম ও ত্যাগের অপূর্ব প্রতিমূর্তি। বঙ্কিমের মতাে আমার জিজ্ঞাসা ‘আয়শা দেবী না মানবী’? জগৎ সিংহের বীরত্ব, বীরেন্দ্র সিংহের অনমনীয় তেজস্বিতা, প্রতিদ্বন্দ্বী প্রেমিকের প্রতি ওসমানের জ্বলন্ত প্রতিহিংসা এবং কতলু খাঁর শৌর্ষবীর্যের যে মুর্তি বঙ্কিম অঙ্কন করেছেন, তা অভূতপুর্ব। এক কথায় ‘দুর্গেশনন্দিনী’ নিঃসন্দেহে আমাদের জীবন-মরণের, আশা- আকাঙ্ক্ষার, হাসিকান্নার ‘মনীষা-মঞ্জুষা’। দুর্গেশনন্দিনী পড়ার আগে পরে আরও অনেক উপন্যাস পড়েছি। কিন্তু দুর্গেশনন্দিনী পাঠের মুগ্ধতা আজও কাটে নি। আজও এটি আমার প্রিয় উপন্যাস। সময় হলে বইটি পড়িস।

তাের সময় কীভাবে কাটে? বাসার বড়দের আমার সালাম এবং ছােটদের আমার স্নেহাশিস জানাবি। আবারও শুভেচ্ছা জানিয়ে শেষ করলাম।

ইতি –
তােরই
শাকিল

বিশেষ দ্রষ্টব্য : পত্রের শেষে ডাকটিকেট সংবলিত খাম ও ঠিকানা ব্যবহার অপরিহার্য


আরও কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ চিঠিপত্রঃ

What’s your Reaction?
+1
4
+1
3
+1
0
+1
1
+1
0
+1
1

আপনার মতামত জানানঃ