শিক্ষা সফরের অভিজ্ঞতার বর্ণনা দিয়ে তােমার বন্ধুকে একটি পত্র লেখ

play icon Listen to this article

শিক্ষা সফরের অভিজ্ঞতার বর্ণনা দিয়ে তােমার বন্ধুকে একটি পত্র লেখ।


অথবা, মনে কর, তােমার নাম খােকন, তুমি ঢাকার সাভারে বসবাস কর; শিক্ষাসফরের অভিজ্ঞতার বর্ণনা দিয়ে তােমার প্রবাসী বন্ধুকে একখানা পত্র লেখ।

১০.০১.২০২১
সাভার, ঢাকা।

প্রিয় শামিম,
আশা করি ভালাে আছ। আমিও আল্লাহর রহমতে ভালাে আছি। যখন আমি আমার একটি অভিজ্ঞতার কথা জানিয়ে চিঠি লিখতে বসেছি, ঠিক তখনই তােমার চিঠি পেলাম।

আজ আমি তােমাকে আমার জীবনের একটি চমৎকার অভিজ্ঞতার কথা লিখছি। আমরা আমাদের স্কুল থেকে ডিসেম্বর মাসের ২৬ তারিখে শিক্ষাসফরে কক্সবাজার গিয়েছিলাম। ফিরে এসেছি ২৯ ডিসেম্বর। প্রথম দিন সকালে সমুদ্র সৈকতে গিয়ে উঁচু উচু ঢেউ আর পানির গর্জন শুনে কেমন একটু ভয় ভয় লাগছিল। অবশ্য ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই ভয়টা কমেছে। ফিরে এসে দুপুরে কেয়াং দেখতে গেলাম। গৌতমবুদ্ধের বেশ কয়েকটি মূর্তি দেখে প্রাণ জুড়িয়ে গেল। নিজের চোখে না দেখলে কারও কাছ থেকে গল্প শুনে মুর্তিগুলাের সৌন্দর্য সম্পর্কে ধারণা পাওয়া সম্ভব নয়।

ব্রোঞ্জ আর কষ্টিপাথরে নির্মিত মূর্তিগুলাে সত্যি অপূর্ব। সবগুলাে মূর্তি অনেকক্ষণ ধরে দেখার পরও হােটেলে ফিরে আসতে ইচ্ছে হচ্ছিল না। খেতে বসেও কেয়াং-এর মূর্তিগুলােই চোখের সামনে ভাসছিল। বিকেলে আবার সৈকতে গেলাম সূর্যাস্তের দৃশ্য দেখার জন্য। জীবনে এই প্রথম সমুদ্রের পানিতে সূর্য ডুবতে দেখলাম। লাল গােলকের মতাে সূর্যটা আস্তে আস্তে ডুবে গেল সমুদ্রের পানিতে। সে এক অপূর্ব দৃশ্য। এর পরিপূর্ণ বর্ণনা দেওয়ার মতাে ভাষা আমার জানা নেই। ভবিষ্যতে সুযােগ হলে তােমাকে নিয়ে একবার কক্সবাজার যাব। আজ এ পর্যন্তই। তােমার বাবা-মাকে আমার সালাম দিও।

ইতি-
তােমার প্রীতিধন্য
খােকন

বিশেষ দ্রষ্টব্য : পত্রের শেষে ডাকটিকেট সংবলিত খাম ও ঠিকানা ব্যবহার অপরিহার্য।


আরও কয়েকটি ব্যক্তিগত চিঠিঃ

What’s your Reaction?
+1
18
+1
38
+1
13
+1
11
+1
10
+1
6

আপনার মতামত জানানঃ

সাবস্ক্রাইব করুন...    OK No thanks