গ্রামকে নিরক্ষরতার অভিশাপ থেকে মুক্ত করার ক্ষেত্রে নিজের ভূমিকার বর্ণনা দিয়ে বন্ধুর কাছে পত্র লেখ

play icon Listen to this article

গ্রামকে নিরক্ষরতার অভিশাপ থেকে মুক্ত করার ক্ষেত্রে নিজের ভূমিকার বর্ণনা দিয়ে প্রবাসী বন্ধুর কাছে পত্র লেখ।

অথবা, মনে কর, তুমি রিনি। তুমি বিজয়পুর গ্রামের বাসিন্দা। তােমার গ্রামকে নিরক্ষরতার অভিশাপ থেকে মুক্ত করার ক্ষেত্রে নিজের ভূমিকার বর্ণনা দিয়ে তােমার বন্ধু মিনিকে একটি পত্র লেখ।


SSC: ঢা. বো. ১৬, য. বো. ১৬


স্বরূকাঠি, পিরােজপুর।

প্রিয় রেহান,
প্রথমে আমার অফুরন্ত ভালােবাসা ও শুভেচ্ছা নিও। আশা করি সকলকে নিয়ে ভালাে আছ। আমিও আল্লাহর ফজলে ভালাে আছি। গতকাল তােমার লেখা একখানা পত্র পেয়েছি। তুমি জানতে চেয়েছ পরীক্ষার পরের ছুটি আমি কীভাবে কাটিয়েছি।

তুমি জেনে খুশি হবে যে, আমি গ্রামে একটি মহৎ কাজ করে আমার ছুটি কাটিয়েছি। আমাদের গ্রামটির অবস্থান পল্লির দুর্গম অঞ্চলে। এখানে শিক্ষার ভালাে ব্যবস্থা গড়ে ওঠে নি। তাই আমি ও আমার কয়েকজন বন্ধু মিলে গ্রামে বয়স্কদের জন্য একটি পাঠাগার ও একটি নৈশ বিদ্যালয় স্থাপন করেছি। আমাদের গ্রামের অধিকাংশ লােক নিরক্ষর কৃষক। নিরক্ষরতা ও অজ্ঞতা তাদের জীবনের বড় অভিশাপ । এজন্য তারা কোনাে কাজেই অগ্রগতি আনতে পারছে না। জীবনমানের পরিবর্তনের কথা ভাবতেই পারছে না তারা। কষ্ট ছাড়া তাদের আর কোনাে গতি নেই। তাই আমরা কয়েকজন যুবক ও ছাত্র মিলে নিরক্ষর কৃষকদের শিক্ষার আলাে দান করেছি। তােমার কাছেও আমি তাই আশা করি। আজ এ পর্যন্তই। তােমার সুন্দর জীবন ও সর্বাঙ্গিন সাফল্য কামনা করি। তােমার চিঠির অপেক্ষায় রইলাম।


ইতি-
তােমার প্রিয়
আসিফ।


আরও কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ চিঠিপত্রঃ

What’s your Reaction?
+1
9
+1
3
+1
0
+1
3
+1
1
+1
0

আপনার মতামত জানানঃ

সাবস্ক্রাইব করুন...    OK No thanks