পানীয় জলে আর্সেনিক সমস্যার উপর একটি প্রতিবেদন রচনা কর

play icon Listen to this article

একটি জাতীয় পত্রিকার সাংবাদিক হিসেবে পানীয় জলে আর্সেনিক সমস্যার উপর একটি প্রতিবেদন রচনা কর।


SSC: ঢা. বো. ১৬, ঢা. বো. ১৭


পানিতে আর্সেনিক সমস্যা


নিজম্ব প্রতিবেদক, হােমনা। ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯ : কুমিল্লা শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত হােমনা একটি উন্নয়নশীল থানা। এ থানার লােকজনেরা নলকূপের পানি পান করে। কিন্তু সাম্প্রতিককালে অত্র এলাকায় নলকূপের পানিতে আর্সেনিক নামক বিষ দেখা দেয়ার কারণে গণমানুষের স্বাস্থ্য নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। অত্র এলাকার মানুষ নানাবিধ সমস্যায় ভুগছে।

আর্সেনিক আক্রান্ত ব্যক্তির শরীরে বা হাতের তালুতে বাদামি ছাপ পড়তে পারে। সাধারণত বুকে, পিঠে কিংবা বাহুতে ‘স্পটেড পিগমেনটেশন’ দেখা যেতে পারে, যা পরবর্তীতে ত্বকের ক্যান্সারে রূপ নিতে পারে। অনেক রােগীর লিউকোসেলানােসিস, সাদা এবং কালাে দাগ পাশাপাশি থাকে। আক্রান্ত ব্যক্তির জিহ্বা, মাড়ি, ঠোট ইত্যাদিতে মিউকাস মেমব্রেন মেলানােসিসও হতে পারে। কারও কারও হাত-পায়ের চামড়া পুরু হয়ে যায়, আঙুল বেঁকে যায়, অসাড় হয়ে যায়।

এছাড়া পায়ের আঙুলের মাথায়ও পচন ধরতে পারে। আর্সেনিকের বিষক্রিয়ার অন্যান্য লক্ষণগুলাে হল- হজমে বিঘ্ন ঘটা, পেটব্যথা, খাবারে অবুচি, বমি বমি ভাব, ডায়রিয়া ইত্যাদি। অত্র এলাকায় সরেজমিনে গিয়ে এসব লক্ষণাক্রান্ত অনেক আর্সেনিক রােগীর দেখা পাওয়া গেছে।

আর্সেনিকের ভয়াবহতা প্রতিরােধে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের এখনই ব্যবস্থা গ্রহণ জরুরি। প্রথমেই টিউবওয়েল পরীক্ষা করে আর্সেনিক প্রাপ্ত টিউবওয়েল গুলাে বন্ধ করে দিতে হবে। গার্হস্থ্য ফিল্টার, কমিউনিটি ভিত্তিক আর্সেনিক বিশােধন প্ল্যান্ট, গভীরতর নলকূপ স্থাপন করতে হবে। আক্রান্ত রােগীর প্রয়ােজনীয় সুবিধা দিতে হবে। তবেই আর্সেনিক দূষণ থেকে রক্ষা পাবে অত্র এলাকা।


প্রতিবেদক
কায়সার


আরও কয়েকটি প্রতিবেদন রচনাঃ

What’s your Reaction?
+1
0
+1
10
+1
0
+1
0
+1
1
+1
0

আপনার মতামত জানানঃ