সারাংশ: ভবিষ্যতের ভাবনা ভাবাই হলো জ্ঞানীর কাজ

বাংলা ২য় পত্র – সারাংশ

ভবিষ্যতের ভাবনা ভাবাই হলো জ্ঞানীর কাজ


ভবিষ্যতের ভাবনা ভাবাই হলো জ্ঞানীর কাজ। পিঁপড়ে-মৌমাছি পর্যন্ত যখন ভবিষ্যতের জন্যে ব্যতিব্যস্ত, তখন মানুষের কথা বলাই বাহুল্য। ফকির-সন্ন্যাসী যে ঘরবাড়ি ছেড়ে, আহার-নিন্দ্রা ভুলে, পাহাড়-জঙ্গলে চোখ বুজে বসে থাকে, সেটা যদি নিতান্ত পঞ্জিকার কৃপায় না হয়, তবে বলতে হবে ভবিষ্যতের ভাবনা ভেবে কোনো লাভ নেই। সমস্ত জীব-জন্তুর দুটো চোখ সামনে থাকবার মানে হলো ভবিষ্যতের দিকে যেন নজর থাকে।

অতীতের ভাবনা ভেবে লাভ নেই। পন্ডিতেরা তো বলে গেছেন, ‘গতস্য শোচনা নাস্তি।’ আর বর্তমান সে তো নেই বললেও হয়। এটা যেটা বর্তমান সেই-এই কথা বলতে বলতে অতীত হয়ে গেল। কাজেই নদীর তরঙ্গ গণনা আর বর্তমানের চিন্তা করা সমানই অনর্থক। ভবিষ্যতের মানব কেমন হবে সেটা একবার ভেবে দেখা উচিত।

সারাংশ:

মানুষের জীবনে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাজ হচ্ছে ভবিষ্যতের ভাবনা ভেবে অগ্রসর হওয়া। অতীতের ব্যর্থতার অনুশােচনা করে সময় নষ্ট করা উচিত নয়। ভবিষ্যই সম্ভাবনাময়, তাই ভবিষ্যতের কথা ভেবেই বর্তমানের কাজ করা উচিত।

আপনার মতামত জানানঃ